তরুণ প্রোগ্রামাদের জন্য নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি!

August 15, 2016

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির পরিচয়ের অনেকাংশ জুড়ে রয়েছে আমাদের অসাধারণ ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের বিস্তৃতি। কিন্তু, অনেকেই জানেন না যে, বিশ্বমানের পড়াশোনার পাশাপাশি প্রতি সেমিস্টারে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা, সেরা প্রোগ্রামারদের জন্য ১০০% পর্যন্ত স্কলারশিপ, কম্পেটিটিভ প্রোগ্রামিংয়ের জন্য সাপ্তাহিক ক্লাস, বিভিন্ন স্টুডেন্ট কমিউনিটি - মিলিয়ে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি তরুণ প্রোগ্রামাদের জন্য দেশের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়!

Intra NSU Programming Contests

প্রোগ্রামিংয়ে শিক্ষার্থীদের আগ্রহ বাড়াতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে এখন প্রতি সেমিস্টারে আয়োজিত হচ্ছে INPC বা Intra NSU Programming Contest। পূর্বে সনদ ও ক্রেস্ট দিয়ে পুরস্কৃত করা হত। কিন্তু Summer 2016 সেমিস্টার থেকে ঘোষিত হয়েছে বিজয়ীদের জন্য ১০০% পর্যন্ত স্কলারশিপ!

র‍্যাংকিংয়ে প্রথম ১ম-৫ম ১০০%
পরবর্তী ৬-১০ তম পাবে ৭৫%
পরবর্তী ১১-১৫ তম পাবে ৫০%
এবং পরবর্তী ১৬-২০ তম স্থানের অধিকারীরা পাবে ২৫% স্কলারশিপ

(তবে, প্রোগ্রামিং করতে করতে করতে, পড়ালেখা ভুলে, ফেল করে, প্রবেশন খেয়ে বসলে কিন্তু আর স্কলারশিপ পাবে না।)

নর্থ সাউথ প্রবলেম সলভার্স কমিউনিটি

প্রায় প্রতি সপ্তাহেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে আয়োজিত হয় কম্পেটিটিভ প্রোগ্রামিংয়ের ক্লাস। এসিএম আইসিপিসিসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতার প্রস্তুতির পাশাপাশি সামগ্রিক প্রোগ্রামিং স্কিলকে বাড়াতে এই ক্লাসের জুড়ি নেই। নর্থ সাউথ প্রবলেম সলভার্স কমিউনিটির তত্ত্বাবধানে আয়োজিত হয় এসকল ক্লাস। ক্লাসগুলোতে প্র্যাকটিস, লেকচার ও প্রায়ই মিনি-কন্টেস্ট লেগেই থাকে! প্রবলেম সলভার্স কমিউনিটিতে দেখা মিলবে তোমার মত আরও অনেক অস্থির প্রোগ্রামারের!

ওয়ার্ক-স্টাডি প্রোগ্রাম

পড়াশোনার পাশাপাশি ইন্ডাস্ট্রির জন্য তৈরি হতে দরকার সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট স্কিল; এর জন্য নর্থ সাউথের আইটি ডিপার্টমেন্ট, অফিস অফ অ্যাডমিশনসের মত অন্যান্য অফিস প্রায়ই প্রোগ্রামার / ডেভেলপার হিসেবে শিক্ষার্থীদের নিয়োগ দেয়। এখানে Java EE, PHP, Database Systems সহ অনেককিছু নিয়ে কাজ করার সুযোগ মিলবে তরুণ শিক্ষার্থীদের। পাশাপাশি, বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচ ও পকেটমানিও মিলবে!

বিভিন্ন ক্লাব ও কমিউনিটি

বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে বিভিন্ন ক্লাব ও কমিউনিটির কার্যক্রম: NSU CEC (Computer and Engineering Club), INSB (IEEE NSU Student Branch), NSU MSP (NSU Microsoft Student Partners), NSUFC (Firefox Community) যার মধ্যে অন্যতম। বছড়জুরে এসকল কমিউনিটির কার্যক্রম চলতেই থাকে, যার মধ্যে বিভিন্ন সেমিনার, ওয়ার্কশপ, প্রতিযোগিতাও রয়েছে। রোবট বিশেষজ্ঞ থেকে অপারেটিং সিস্টেম আর্কিটেক্ট - সব রকম শিক্ষার্থীর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ মিলবে এসব স্টুডেন্ট কমিউনিটিতে।

গবেষণার সুযোগ

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে সারাবছর কোন না কোন বিষয়ে গবেষণা চলতেই থাকে। অভিজ্ঞ ফ্যাকাল্টি মেম্বারগণ প্রায়ই **শিক্ষার্থীদের নিয়ে **বিভিন্ন গবেষণা প্রকল্পে কাজ করেন, যার মধ্যে রয়েছে রোবট থেকে মেশিন লার্নিং সিস্টেম ও আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। এসকল প্রকল্পে কাজ করার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে যথেষ্ঠ পরিমাণ স্পেশালাইজড হওয়া সম্ভব। আর গবেষণার কাজ তোমার ক্যারিয়ারকে ঠেলে নিয়ে যাবে অনেকখানি!

কন্টেস্ট প্রোগ্রামার হও, গবেষক কিংবা ডেভেলপার - নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে তোমার প্রতিভা বিকাশের সুযোগ রয়েছেই। নর্থ সাউথের অসাধারণ কমিউনিটিতে তোমাকে সাদর আমন্ত্রণ।

comments powered by Disqus